বোমায় উড়ে গেল পুরুষাঙ্গ, অতঃপর. . .

যুক্তরাষ্ট্রের ডাক্তাররা এক আহত সৈনিকের শরীরে সফলভাবে পুরুষাঙ্গ এবং অণ্ডকোষ প্রতিস্থাপন করতে সক্ষম হয়েছেন।
২৪ এপ্রিল, মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই প্রতিস্থাপনের কথা জানানো হয়। তবে প্রতিস্থাপনের অস্ত্রোপচারটি করা হয়েছিল গত ২৬ মার্চ।

আফগানিস্তানে বোমা বিস্ফোরণে আহত এক সৈনিকের শরীরে এই অস্ত্রোপচার করেন বাল্টিমোরের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির চিকিৎসকরা। একটি লুকানো বোমের ওপর পা পড়ে যাওয়ায় বিস্ফোরণ ঘটে তার পুরুষাঙ্গসহ শরীরের কিছু অংশ উড়ে যায়।
মৃত দাতার শরীর থেকে পুরুষাঙ্গ, অণ্ডকোষ এবং তলপেটের কিছু অংশ ওই সৈনিকের শরীরে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। ১১ জন চিকিৎসক মিলে ১৪ ঘণ্টায় এ অস্ত্রোপচার সম্পাদন করেন। অস্ত্রোপচারটির নাম হলো ভাস্কুলারাইজড কম্পোজিট অ্যালোট্রান্সপ্লান্টেশন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এই অস্ত্রোপচারের ফলে পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই সৈনিক আবারও স্বাভাবিক যৌনজীবন ফিরে পাবেন। এ সপ্তাহে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে তাকে। এক বছরের মাঝেই তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
অস্ত্রোপচারের খরচ দিয়েছে জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির জেনিটাল ট্রান্সপ্লান্ট প্রোগ্রাম। আরও ৬০ জনের জননাঙ্গ প্রতিস্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে তারা।
২০১৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার চিকিৎসকরা প্রথম পুরুষাঙ্গ প্রতিস্থাপন করেন। যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম পুরুষাঙ্গ প্রতিস্থাপন হয় ২০১৬ সালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *